Saturday, March 02, 2024
ক্রিকেটখেলা

শেষ হলো বরিশাল ও কুমিল্লার মধ্যকার ম্যাচ, দেখেনিন ফলাফল

আজ বিপিএলে দিনের দ্বিতীয় ম্যাচে তামিমে ফরচুন বরিশালের মুখোমুখি হয়েছে লিটনের কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স। টসে হেরে আগে ব্যাট করে নির্ধারীত ২০ ওভার শেষে ৯ উইকেটে ১৬১ রান তোলো ফরচুন বরিশাল। ১৬২ রানের টার্গেটে ব্যাট করতে নেমে শুরুতেই উইকেট হারায় কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স। পড়ে যায় চাপে। শেষ পর্যন্ত ১ বল হাতে ৪ উইকেটের জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে লিটনরা।

ফরচুন বরিশালের ইনিংস বিবরণ:

টস হেরে ব্যাটিং করতে নেমে পাওয়ার প্লেতে ৩ উইকেট হারিয়ে ৪৪ রান তোলো ফরচুন বরিশাল। হারায় তামিম, মিরাজ ও প্রিথম কুমারের উইকেট। তামিম ১৬ বলে ১৯ রান করেন। তামের ব্যাট থেকে আসে ১টি ছক্কার ২টি চারের মার। মিরাজ ডাক মারেন। প্রিথম কুমার ৭ বলে ৮ রান করেন।

এরপর দলের হাল ধরেন মুশফিক ও সৌম্য সরকার। ৩১ বলে ৪২ রান করেন সৌম্য সরকার। তার ব্যাট থেকে আসে ৪টি চার ২টি ওভার বাউন্ডারি। তবে সৌম্য না পারলেও ফিফটি তুলে নিয়েছেন মুশফিক। ৪৪ বলে ৬৬ রান করেন তিনি। মুশফিকের ব্যাট থেকে আসে ৬টি চার ও ২টি ছক্কা।

allnewsbd24 Google News ChanneIআলনিউজবিডি২৪ এর খবর পেতে ফলো করুন আমাদের গুগল নিউজ চ্যানেল।

তবে এরপর বলার মত তেমন কিছু করতে পারেনি কেউ। সয়েব মালিক ৭, মাহমুদউল্লাহ ৪, আব্বাস ৭ ও ১ রানে অপরাজিত থাকেন ইমরান।

কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সের ইনিংস বিবরণ:

১৬২ রানের টার্গেটে ব্যাট করতে নেমে শুরুটা ভালো হয়নি কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সের। পাওয়ার প্লেতে ৩৮ রান তুলতো ২ উইকেট হারায় কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স। ১৮ বলে ১৩ রান করেন অধিনায়ক লিটন দাস। তার ব্যাট থেকে ১টি চারের মার। ১৫ বলে ১৮ রান করেন মোহাম্মদ রিজওয়ান। তার ব্যাট থেকে আসে ১টি ছক্কার ও ২টি চারের মার।

তবে হতাশ করেছেন তৌহিদ হৃদয়। ডাক মারেন তিনি। ১৫ বলে ১৩ রান করে সাজ ঘরে ফিরেন রস্টন চেজ। তার ব্যাট থেকে ২টি চারের মার। একাই লড়াই চালিয়ে যান ইমরুল কায়েস। ৪১ বলে ৫২ রান করেন তিনি। তার ব্যাট থেকে আসে ৪টি চার ও ৩টি ওভার বাউন্ডারি।

আরও পড়ুন:
অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপ: দেখেনিন পয়েন্ট টেবিলে বাংলাদেশের অবস্থান
মাশরাফির বিসিবি সভাপতি হওয়ার পথ অনেকটাই পরিস্কার

তবে শেষ দিকে ব্যাটিংয়ে ঝড় তোলো জাকের আলী ও খুশদিল শাহ। জাকের আলীর ব্যাট থেকে ২০ বলে ২৩ রান। মারেন ২টি ছক্কা। খুশদিল শাহ করেন ৭ বলে ১৪ রান। মারেন ২টি চার। দলকে জয় এনে দেন ফরদে। শেষ দিকে ৪ বলে ১৩ রান করে দলকে জেতান তিনি। ৬ উইকেটে ১৬২ রান তোলো কমিল্লা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *