Saturday, February 24, 2024
ক্রিকেটখেলা

আইপিএলে খেলতে না পারায় আপসোস করে যা বললেন তাসকিন

বিশ্বের সবচেয়ে বড় ফ্র্যাঞ্চাইজি টুর্নামেন্ট হলো আইপিএল। আইপিএল খেলার জন্য মুখিয়ে থাকে ক্রিকেটাররা। তার ব্যাতিক্রম নয় বাংলাদেশের ক্রিকেটাররাও। তবে ইচ্ছে থাকলেও সুযোগ পায় না অনেক ক্রিকেটার। তবে বার বার সুযোগ পেয়েও খেলা হচ্ছে না তাসকিনের। এবারও আইপিএলের নিলামে শুরুতে নাম ছিল তার। তবে পরে বিসিবির আপত্তিতে নিলাম থেকে নিজের নাম প্রত্যাহার করে নেয় তাসকিন।

সদ্য শেষ হওয়া আইপিএল নিলামে নাম থাকলে তাসকিনের দল পাওয়া প্রায় নিশ্চিতই ছিল। আসন্ন আইপিএল খেলার জন্য তাসকিনের সঙে দুইটি ফ্র্যাঞ্চাইজি কথা বলেছিল। পাঞ্জাব কিংস ও কলকাতা নাইট রাইডার্স তাকে দলে ভেড়াতে চেয়েছিল। এই কথা তাসকিন নিজেই বলেছেন। তবে বিসিবির আপত্তিতে শেষ পর্যন্ত কোনো দলের সঙ্গেই চুক্তি করেননি তিনি।

যে কোনো ফ্র্যাঞ্চাইজি টুর্নামেন্টে খেলা সব ক্রিকেটারের জন্যই একটা স্বপ্ন। আবার এখানে আর্থিক বিষয়টাও থাকে। জাতীয় দলের চেয়ে বেশি আয় করা যায়। যার ফলে তাসকিনের মতো একজন ক্রিকেটারের জন্য সেই সুযোগ হাতছাড়া করাটা আর্থিকভাবে ক্ষতিরই বটে।

আরও পড়ুন:

ফাইনালে হারের পর মাঠেই অবিশ্বাস্য কান্ড করে বসে কোহলি
কোহলিকে নিয়ে অবিশ্বাস্য মন্তব্য করলেন নাসের হুসেইন
২০২৪ টি-২০ বিশ্বকাপে শিরোপা জিতবে কোন দল ভবিষ্যদ্বাণী করলেন নাসের

আইপিএলে না খেলতে পারা বিষয়ে স্পিড স্টার তাসকিন বলেন, ‘এ নিয়ে তিনবার সুযোগ এলো (আইপিএলে), এবারও মিস হলো। একটু খারাপ লাগে কারণ খেলোয়াড় হিসেবে সবারই ইচ্ছে সব ফ্র্যাঞ্চাইজি লিগগুলোতে অংশগ্রহণ করার। শুধু আইপিএল না, বিভিন্ন লিগ থেকেই অফার আসে।’

বাংলাদেশের পেসারদের একটা বড় সমস্যা হলো তারা বেশি ইনজুরিতে পড়ে। তাসকিন তার বাইরে না। আর বর্তমানে বাংলাদেশের পেস ইউনিটের দায়িত্ব তার কাঁধে। জাতীয় দল আর ইনজুরি মিলিই তার জন্য আইপিএলের মতো দীর্ঘ সময়ের আসরে খেলাটা চ্যালেঞ্জিংই।

তাসকিন বলেন, ‘বোর্ড আসলে ছাড়পত্র দিতে চায় না বিভিন্ন কারণে। খেলাও থাকে, স্বাস্থ্যের ইস্যু আছে। এবারও বোর্ডের সঙ্গে কথা বলেছি, তারা বলেছে বিবেচনা করবে। কিন্তু অবশ্যই ভালো লাগে না এরকম ফ্র্যাঞ্চাইজিগুলো মিস করতে। সবারই খেলার ইচ্ছে, আমারও। একই রকম আশা নিয়ে আছি যে ভবিষ্যতে আবার হবে।’

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *