Saturday, July 20, 2024
ক্রিকেটখেলা

ভারতীয় বোলারদের সতর্ক বার্তা দিলেন ডোনাল্ড

ভারত বনাম দক্ষিণ আফ্রিকা: চলছে ভারত ও দক্ষিণ আফ্রিকার মধ্যকার টেস্ট সিরিজ। দক্ষিণ আফ্রিকার মাট ভারতের জন্য বরাবরা একটি বড় চ্যালেঞ্জের নাম। দক্ষিণ আফ্রিকার মাটিতে এখন পর্যন্ত কোনো টেস্ট সিরিজ জিততে পারেনি এশিয়ার পরাশক্তি দল ভারত।

তার মধ্যে এবার প্রথম টেস্ট ম্যাচে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে ইনিংস ব্যবধান ও ৩২ রানে হেরেছে সফরকারীরা। যার ফলে চলে গেছে একেবারে ব্যাকফুটে। তাই সিরিজে ঘুরে দাড়াতে হলে জয় ছাড়া কোনো বিকল্প নেই।

প্রথম টেস্টে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে হারার পেছনো একটা বড় কারণ হলো ভারতীয় বোলারদের ব্যর্থতা। যে উইকেটে দক্ষিণ আফ্রিকার বোলারা ভারতকে ২৪৫ রানে অল-আউট করে। সে উইকেটে দক্ষিণ আফ্রিকার ব্যাটাররা প্রথম ইনিংসে তোলে ৪০৮ রান। প্রথম ইনিংসে দক্ষিণ লিডটাই মুলত ম্যাচের আসল পার্থক্য গড়ে দেয়।

আরও পড়ুন: মেসির সঙ্গে অবসরে যেতে পারে তাঁর ১০ নম্বর জার্সিও

৩ জানুয়ারি বুধবার কেপটাউনে শুরু হচ্ছে সিরিজে শেষ টেস্ট ম্যাচ। সিরিজ বাঁচাতে হলে জয় ছাড়া কোনো বিকল্প নেই ভারতের কাছে। তবে দ্বিতীয় টেস্টে আগে ভারতীয় বোলারদের সতর্ক বার্তা দিলেন দক্ষিণ আফ্রিকার পেস কিংবদন্তি ও বাংলাদেশের সাবেক পেস বোলিং কোচ অ্যালান ডোনাল্ড।

সংবাদ সংস্থা পিটিআইকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে বাংলাদেশের সাবেক পেস বোলিং কোচ অ্যালান ডোনাল্ড বলেন, ‘আমি জানি (প্রথম টেস্টে) দক্ষিণ আফ্রিকা পরিবেশ পরিস্থিতিকে অনেক ভালোভাবে কাজে লাগিয়েছে। এই বিষয়ে আলাদা করে কোনও প্রশ্ন থাকতেই পারে না। দক্ষিণ আফ্রিকার বোলাররা পিচে ৫ থেকে ৫.৫ মিটার লেন্থে বল করেছে। যার সুবিধা তারা পেয়েছে। তারা বলকে পিচ থেকে কাজ করার সুযোগ দিয়েছে। এই কাজটাই ভারতীয় বোলাররা ঠিকভাবে করতে পারেনি।’

ডোনাল্ড আরও বলেন, ‘দক্ষিণ আফ্রিকাতে বলকে পিচের সাহায্য নিয়ে কাজ করতে দিতে হয়। তাতে অনেক বেশি সাহায্য পাওয়া যায়। ভারতের থেকে এই জায়গায় এগিয়ে ছিল দক্ষিণ আফ্রিকার পেসাররা। তারা অনেক বেশি ধৈর্য রেখেছে। যা ভারতীয় বোলাররা রাখেনি। দ্বিতীয় ইনিংসেও তারা বাউন্সার অনেক বেশি ব্যবহার করেছে।’

এই কিংবদন্তি মনে করেন, প্রথম টেস্টে ভারতীয় বোলাররা অতিরিক্ত কিছু করার আশায় তাড়াহুড়ো করেছে। খুব তাড়াতাড়ি অনেক বেশি শর্ট বল করেছে। সেটাই বুমেরাং হয়।

কেপটাউনে আরও কঠিন পরীক্ষায় পড়তে হবে ভারতীয় বোলারদের এমনটাই মনে করেন ডোনাল্ড। তার ভাষায়, ‘কেপটাউনে দুই দলের বোলাররাই অনেক বেশি এনার্জি নিয়ে খেলতে আসবে। কেপটাউনে কিন্তু উইকেট অনেক বেশি পাটা হবে। ফলে এখানের পিচে উইকেট নিতে গেলে ভারতীয় বোলারদের অনেক বেশি সৃজনশীল হতে হবে। কাজটা সহজ হবে না।’

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *