Saturday, July 13, 2024
বিনোদন

একজন সুপারস্টার জোনাথন মেজরের দ্রুত উত্থান ও বিস্ময়কর পতন

আজকাল একজন নতুন চলচ্চিত্র তারকাকে চেনা জানা খুব কঠিন, যে কারণে হলিউডের লোকেরা জোনাথন মেজর অনেক উপরে তুলে দিয়েছিল। সেরিব্রাল এবং ক্যারিশম্যাটিক একজন অ্যাকশন নায়কের পেশীবহুল গঠনের সাথে ৩৪ বছর বয়সী এই অভিনেতা প্রশংসিত ইন্ডিজ থেকে দ্রুত বড় ব্লকবাস্টার ছবি দিয়ে সবার নজরে চলে আসেন। “অ্যান্ট-ম্যান অ্যান্ড দ্য ওয়াস্প: কোয়ান্টুম্যানিয়া” এবং “ক্রিড ৩” এবং সেইসাথে অস্কারের প্রতিযোগী, প্রতিপত্তির নাটক “এর বিশাল রিলিজ দ্বারা তাকে রাতারাতি তারকা বানিয়ে দেয়।

পরিবর্তে জনাথেন মেজর দর্শনীয় ফ্যাশনে আপন শক্তি জ্বলে উঠে। মার্চ মাসে তার বান্ধবী, গ্রেস জব্বারীকে নির্যাতন করার অভিযোগে উঠে। মেজরকে সোমবার বেপরোয়া হামলা ও হয়রানির জন্য দোষী সাব্যস্ত করা হয়। ফেব্রুয়ারী ৬ তারিখে সাজা নির্ধারণ করা হয়। তবে অভিনয়ের সাথে জড়িত আরও দুটি মামলায় তাকে খালাস দেওয়া হয়েছিল।

রায় পড়ার ঠিক পরে, মার্ভেল স্টুডিওস ঘোষণা করেছিল যে তার আর অভিনেতার সাথে কাজ করবে না। সুপারভিলেন কাং হিসাবে অভিনয় করেছিলেন তিনি। তাকে ঘিরে পরবর্তী দুটি মেগা-বাজেট সহ স্টুডিওর বেশ কয়েকটি বড় প্রজেক্টের জন্য তার সাথে চুক্তি করা হয়েছিল।

এটি আরও নিশ্চিত করে যে এই হলিউড নিউ কামার এখন একজন ব্যক্তিত্বহীন ব্যক্তি হয়ে উঠেছে। সার্চলাইট পিকচার্স ইতিমধ্যেই “ম্যাগাজিন ড্রিমস” সরিয়ে দিয়েছে, যেখানে জনাথেন মেজর তার ছবিটি বছরের শেষের রিলিজ দেয়ার কথা ছিল। যেখানে তিনি একজন স্টেরয়েড-যুক্ত বডি বিল্ডারের ভূমিকায় অভিনয় করেছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *