গাড়িতে যৌন সংসর্গের পর প্রেমিকাকে হত্যা

মোট দেখেছে : 9
প্রসারিত করো ছোট করা পরবর্তীতে পড়ুন ছাপা

অলনিউজবিডি২৪ ডেস্ক: গাড়ির মধ্যে যৌন সংসর্গের পর প্রেমিকাকে গলা টিপে হত্যা করেছে এক প্রেমিক। এরপর সে ঐ নারীর নগ্ন দেহ তুলে দেয় মেয়েটির পরিবারের হাতে। রোমহর্ষক এই ঘটনা ঘটেছে ভারতের রাজধানী দিল্লির শেখ সরাইয়ে।

জানা গিয়েছে, এই ঘটনার মাসখানেক আগেই গর্ভপাত করান ৩৮ বছরের তালাকপ্রাপ্ত রানি গুপ্তার (নাম পরিবর্তিত)। তার গর্ভে অভিযুক্ত প্রেমিকেরই সন্তান ছিল বলে অভিযোগ। এরপর থেকেই নিজের থেকে ৮ বছরের ছোট প্রেমিক শাহবাদ খানকে বিয়ের জন্য চাপ দিতে থাকেন বলে জানা গিয়েছে। নিজের ১২ বছরের ছেলেকে নিয়ে স্বামী থেকে আলাদা হয়ে গিয়েছিলেন রানি। ছেলেকে মালভিয়া নগরে তার দাদা-দাদির কাছে রাখেন তিনি। একটি হেলথকেয়ার কোম্পানিতে শাহবাদ ও রানি কাজ করতেন।তাদের ঘনিষ্ঠতা আট মাসের বলে জানা গিয়েছে।

রানির এক সহকর্মী জানিয়েছেন, 'জুলাইতে যখন রানি গর্ভবতী হয়ে পড়েন, তখন শাহবাদ জোর করে তাকে গর্ভপাত করায়। তারপর থেকেই রানি বিয়ের জন্য চাপ দিচ্ছিলেন। কিন্তু শাহবাদ রানিকে এড়িয়ে চলতে শুরু করেন। ঘটনার দিন ওরা একসঙ্গে বেরিয়ে যায়। মদ্যপান করে। একটি শপিং মলের কাছে পার্কিং এলাকায় গাড়ির মধ্যে ওরা শারীরিক সম্পর্ক করে। এরপর কোনও বিষয়ে উত্তপ্ত বাক্যবিনিময় হলে রানিকে গলা টিপে মেরে ফেলে শাহবাদ।'

পুলিশের কাছে শাহবাদ তার অপরাধের কথা স্বীকার করে জানিয়েছে, ওই সময় তারা দুজনেই মদ্যপ ছিল। রানিকে খুন করার পর তার নগ্ন দেহ রানির বাড়িতে নিয়ে গেলে, সঙ্গে সঙ্গে তাকে নিয়ে দিল্লির এআইআইএনএস হাসপাতালে ছোটেন তার বাবা-মা। তবে ডাক্তাররা তাকে মৃত বলে ঘোষণা করেন। রানির মেডিকেল পরীক্ষায় দেখা গিয়েছে, শাহবাদ এত জোড়ে রানির গলা টিপেছে যে তার ঘাড়ের হাড়ও ভেঙে গিয়েছে। শাহবাদকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।