আখেরি মোনাজাত শুরু

মোট দেখেছে : 53
প্রসারিত করো ছোট করা পরবর্তীতে পড়ুন ছাপা

অলনিউজবিডি২৪ ডেস্ক: টঙ্গীর তুরাগ তীরের বিশ্ব ইজতেমার আখেরি মোনাজাত শুরু হয়েছে। রবিবার বেলা পৌনে ১১টার পর আখেরি মোনাজাত শুরু হয়। মোনাজাত পরিচালনা করছেন বাংলাদেশের মাওলানা হাফেজ মো. জোবায়ের। তিনি প্রথমবারের মতো বাংলায় মোনাজাত করছেন। ইজতেমার মূল মঞ্চ থেকে আশপাশের সব জায়গা মুসল্লিদের আগমনে পরিপূর্ণ হয়ে উঠেছে। মানুষ অবস্থান নিয়েছে রাজপথসহ আশপাশের বাসাবাড়ির ছাদে।

মুসল্লিরা নিজ নিজ জায়গায় বসে আল্লার দরবারে দুহাত তুলেছেন। মোনাজাতে তারা মুসলিম উম্মার শান্তি কামনা করে দোয়া করছেন।

মোনাজাতে অংশ নিতে বাস-ট্রেনে করে সকাল থেকে লোকজন গিয়ে সেখানে জড়ো  হয়েছেন। আখেরি মোনাজাতে শরিক হতে ইতোমধ্যে লাখ লাখ মুসল্লিদের ঢল নামে ইজতেমা ময়দানে। ইজতেমা ময়দান কানায় কানায় পরিপূর্ণ হয়েছে। সেখানে তিল ধারণের জায়গা নেই। মাঠে জায়গা না পেয়ে অনেক মুসল্লি ইজতেমার আশপাশের সড়কে অবস্থান নেয়। তারা চটি, ত্রিপল, পত্রিকা বিছিয়ে রাস্তায় অবস্থান করছে। মানুষের এই ঢল আব্দুল্লাপুর-উত্তরা পেয়ে ছাড়িয়ে গেছে।

এর আগে ইবাদত বন্দিগী, তাসকিলে তামিল, ধর্মীয় আলোচনা, তাসবিহ তাহলিল আর তাবলীগের বিভিন্ন বিষয়ের উপর বয়ান শোনার মধ্য দিয়ে টঙ্গীর তুরাগ নদীর তীরে ইজতেমার তৃতীয় দিন শুরু হয়।

মোনাজাতে বিপুল মুসল্লির অংশগ্রহণকে কেন্দ্র রেখে বাড়ানো হয়েছে নিরাপত্তা ব্যবস্থা। নেয়া হয়েছে যানবাহন চলাচলে কড়াকড়ি। তবে দিল্লীর মাওলানা সাদের ইজতেমায় অংশ নিতে না দেয়া ও নীরবে চলে যাওয়াটা তার অনুসারীদের মনে গভীর দাগ কেটেছে বলে জানিয়েছেন তার ভক্তরা। কিন্তু ইজতেমার মূল লক্ষ্য মানুষকে আল্লাহমুখী করা। তাই এ ঘটনায় ইজতেমার আয়োজনে তেমন প্রভাব ফেলবে না বলে মনে করেন ইজতেমার আয়োজকরা।

বেলা পৌনে ১১টায় আখেরি মোনাজাতের মধ্যে দিয়ে শেষ হবে এবারের ইজতেমার প্রথম পর্ব।

ইজতেমা শেষে আগত মুসল্লিরা দ্বীনের দাওয়াতি কাজে দেশ বিদেশে বেরিয়ে যাবেন।