৫০ হাজার করে টাকা পেলেন রূপগঞ্জে আহত ৩ নারী শ্রমিক

৫০ হাজার করে টাকা পেলেন রূপগঞ্জে আহত ৩ নারী শ্রমিক

নিজস্ব প্রতিবেদক:নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জের হাসেম ফুড অ্যান্ড বেভারেজ লিমিটেডের কারখানার আগুনে আহত তিন নারী শ্রমিককে ৫০ হাজার টাকা করে দিয়েছে শ্রম ও কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়। তারা হলেন- আমেনা বেগম (৩০) মাজেদা বেগম (২৮) ও হালিমা আক্তার (১৩)।

শনিবার (১০ জুলাই) ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের চিকিৎসাধীন ওই নারী শ্রমিকদের ৫০ হাজার টাকার চেক প্রদান করেন শ্রম ও কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের সচিব একেএম আব্দুস সালাম।

সচিব বলেন, ‘আমরা ঢাকা মেডিকেলে আহত তিন নারী শ্রমিককে ৫০ হাজার টাকার চেক প্রদান করেছি। এছাড়া যারা জীবন বাঁচাতে উপর থেকে লাফ দিয়ে মারা গেছেন তাদের পরিবারকে দুই লাখ টাকার চেক প্রদান করেছি। পর্যায়ক্রমে আহত সবাইকে ৫০ হাজার টাকা করে শ্রমিক কল্যাণ তহবিল থেকে সহায়তা করা হবে।

ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পরিচালক বিগ্রেডিয়ার জেনারেল মো. নাজমুল হক জানান, রূপগঞ্জে অগ্নিকাণ্ডে আহত তিন নারী শ্রমিক আমাদের হাসপাতালের ২০৩ নম্বর ওয়ার্ডে দুইজন ও ২০৪ নম্বর ওয়ার্ডে এক জন মোট তিন ভর্তি রয়েছেন। তাদের বিনামূল্যে সব ধরনের চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে।

চেক প্রদানের সময় উপস্থিত ছিলেন- শ্রম অধিদফতরের মহাপরিচালক গৌতম কুমার, কলকারখানা ও প্রতিষ্ঠান পরিদর্শনের মহাপরিদর্শক মো. নাসির উদ্দিন আহমেদ।

গত ৮ জুলাই বিকেলে ওই কারখানায় অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটে। ঘটনার প্রথম দিন তিনজনের মৃত্যু হয়। আহত হন অর্ধশতাধিক শ্রমিক। ফায়ার সার্ভিসের ঢাকা ও নারায়ণগঞ্জের ১৮টি ইউনিট ২০ ঘণ্টা চেষ্টা চালিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। এরপর গত ৯ জুলাই সকালে ওই ভবনের চারতলা থেকে ২৬ নারীসহ ৪৯ জনের মরদেহ উদ্ধার করা হয়। সব মিলিয়ে এ ঘটনায় মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়ায় ৫২ জনে।

এদিকে অগ্নিকাণ্ডে নিহতদের পরিচয় জানতে এক মাস সময় লেগে যেতে পারে বলে জানিয়েছেন ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের ফরেনসিক বিভাগের ডিএনএ পরীক্ষক মোহাম্মদ মাসুদ রাব্বী সবুজ।

এছাড়া অগ্নিকাণ্ডের ৫২ জন নিহতের ঘটনায় সজীব গ্রুপের চেয়ারম্যান ও ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) আবুল হাসেমসহ আটজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

গ্রেফতার বাকিরা হলেন- সজীব গ্রুপের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) শাহেনশাহ আজাদ, আবুল হাসেমের চার ছেলে (গ্রুপের ডিএমডি) হাসিব বিন হাসেম ওরফে সজীব, (পরিচালক) তারেক ইব্রাহীম, তাওসীব ইব্রাহীম, তানজীম ইব্রাহীম; হাসেম ফুডসের উপ-মহাব্যবস্থাপক (ডিজিএম) মামুনুর রশিদ এবং সিভিল ইঞ্জিনিয়ার ও প্রশাসনিক কর্মকর্তা মো. আলাউদ্দিন।

গ্রেফতার আট আসামির প্রত্যেকের চারদিন করে রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত।