১৪ কেজি ওজন বাড়ান ইতালিয়ান তারকা

১৪ কেজি ওজন বাড়ান ইতালিয়ান তারকা

স্পোর্টস ডেস্ক: নিজ দেশের ক্লাব রোমায় ধারাবাহিক পারফরম্যান্স করে ডাক পেয়েছিলেন বিশ্বের অন্যতম সেরা ক্লাব রিয়াল মাদ্রিদে। সেখানে শুরুটাও হয়েছিল দুর্দান্ত। কিন্তু এরপর কোচের সঙ্গে বচসায় জড়িয়ে রিয়াল মাদ্রিদ অধ্যায়টা ক্যারিয়ারের অন্যতম বাজে সময়ে পরিণত করেন ইতালির ফরোয়ার্ড অ্যান্তনিও কাসানো।

ইতালিয়ান ক্লাব রোমার হয়ে পাঁচ মৌসুমে ৫২ গোল করে ২০০৬ সালের জানুয়ারিতে রিয়ালে নাম লিখিয়েছিলেন কাসানো। সান্তিয়াগো বার্নাব্যুতে গিয়ে দুই ম্যাচে করেছিলেন দুই গোল। কিন্তু এরপর রিয়ালে থাকা প্রায় ১৪ মাস সময়টা স্রেফ নিজেকে হতাশায় ডুবিয়েছেন এ ৩৮ বছর বয়সী ফরোয়ার্ড।

রিয়ালের নগর প্রতিদ্বন্দ্বী অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদের বিপক্ষে ম্যাচ জেতানো পারফরম্যান্স দিয়ে যাত্রা শুরু করেছিলেন কাসানো। এরপর কোচ ফাবিও ক্যাপেলোর সঙ্গে বাঁধে বিরোধ, সুযোগ কমে যায় খেলার। সেই হতাশায় ক্লাবে বসে সরাসরি জার থেকে নিউটেলা খেয়ে খেয়ে ১৪ কেজি ওজন বাড়িয়েছিলেন তিনি।

অথচ ক্লাবে যোগ দিয়ে শুরুতেই ১২ কেজি ওজন কমিয়ে ফেলেছিলেন কাসানো। বোবো টিভিতে ইতালির সাবেক সতীর্থ ক্রিশ্চিয়ান ভিয়েরির সঙ্গে এক আড্ডায় তিনি বলেছেন, ‘আমি যখন রিয়াল মাদ্রিদে গেলাম, শুরুতেই ১২ কেজি ওজন কমিয়ে ফেলেছিলাম। এরপর আবার ধীরে ধীরে ওজন বাড়তে শুরু করে।’

এর পেছনে অন্যতম কারণ ছিল রিয়ালের স্পন্সর কোম্পানি নিউটেলা। যারা প্রতি মাসে পাঁচ কেজি নিউটেলা দিয়ে যেত ক্লাবে। কাসানো বলেন, ‘যখন ক্যাপেলো এলো, আমি দুই ম্যাচে দুই গোল করি। তখন নিজেকে বিশ্বের রাজা মনে হচ্ছিল। কিন্তু অলিম্পিক লিয়নের বিপক্ষে প্রথমার্ধে আমাকে সাবস্টিটিউট করে ক্যাপেলো। ফলে তার সঙ্গে আমার তর্ক হয় এবং আমাকে দল থেকেই বাদ দিয়ে দেয়।’

তিনি আরও যোগ করেন, ‘ক্লাবের অন্যতম স্পন্সর ছিল নিউটেলা। তারা প্রতি মাসে ৫ কেজি করে নিউটেলা দিয়ে যেত। সাত মাসে আমি ১৪ কেজি ওজন বাড়িয়ে ফেলি। বসে বসে সরাসরি জার থেকে নিউটেলা খেতাম। কোনোকিছুর পরোয়া করতাম না তখন। আমি সত্যিই অসহ্য অবস্থায় ছিলাম।’

২০০৬ সালের জানুয়ারিতে রিয়ালে যোগ দেয়ার পর ২০০৭ সালের জুলাইয়ে লোনে সাম্পদোরিয়ায় চলে যান কাসানো। তার মতে রিয়ালের হয়ে খেলা এই দেড় বছরই ছিল ক্যারিয়ারের সবচেয়ে বড় ভুল। এ সময়ে ১৯ ম্যাচে মাত্র ২টি গোলই করতে পেরেছেন তিনি।

কাসানো বলেছেন, ‘আমার সবচেয়ে বড় ভুল ছিল রিয়াল মাদ্রিদে থাকা দেড় বছর। কারণ ঐ সময়টায় আমি নিজেকে ধ্বংস করার সবকিছুই করেছি। এটা অনেক বড় হতাশা।’

রিয়াল মাদ্রিদ ছাড়ার পর লোনে সাম্পদোরিয়ার হয়ে ২২ ম্যাচে ১০ গোল করেন কাসানো। ফলে তাকে রেখে দেয় সাম্পদোরিয়া। সবমিলিয়ে সাম্পদোরিয়ার হয়ে ৭৪ ম্যাচে ২৫ গোল করেন তিনি। এরপর এসি মিলান, ইন্টার মিলান, পারমা ও ভেরোনার হয়ে খেলে আবার সাম্পদোরিয়ায় ফেরেন তিনি। ইতালির হয়ে ৩৯ ম্যাচে ১০ গোল করেছেন কাসানো।