রাজশাহীতে দু’পুলিশ পরিদর্শকের বিরুদ্ধে উত্ত্যক্ত করার অভিযোগ নারী পরিদর্শকের

রাজশাহীতে দু’পুলিশ পরিদর্শকের বিরুদ্ধে উত্ত্যক্ত করার অভিযোগ নারী পরিদর্শকের

রাজশাহী ব্যুরো: রাজশাহী মেট্রোপলিটন পুলিশের (আরএমপি) বোয়ালিয়া এবং দামকুড়া থানার দুই পরিদর্শকের বিরুদ্ধে বাংলাদেশ পুলিশ একাডেমি সারদায় সংযুক্ত পুলিশের ক্রাইম সিন ইউনিটের (সিআইডি) এক নারী পরিদর্শককে উত্ত্যক্ত ও হয়রানির অভিযোগ উঠেছে।

এ ঘটনার সুষ্ঠু তদন্ত ও জড়িত দুই পুলিশ পরিদর্শক এবং তাদের সহযোগীদের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা গ্রহণের দাবি জানিয়ে ভুক্তভোগী নারী পরিদর্শক বুধবার (২৪ মার্চ) আরএমপির কমিশনারকে একটি লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন।
আর বাংলাদেশ পুলিশ একাডেমির অধ্যক্ষ ভুক্তভোগী নারী পরিদর্শকের আবেদনটি আইনানুগভাবে বিবেচনার জন্য সুপারিশও করেছেন।

অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, অভিযুক্ত পরিদর্শকদের একজনের সঙ্গে বাংলাদেশ পুলিশ একাডেমি সারদায় কর্মরত থাকার সুবাদে পরিচিত এবং অপর পরিদর্শক ওই নারী পরিদর্শকের সাবেক স্বামী। দু’জনই ওই নারী পরিদর্শককে বিভিন্নভাবে উত্ত্যক্ত করতেন। এতে সাড়া না দেওয়ায় আরএমপিতে কর্মরত অভিযুক্ত পুলিশ পরিদর্শক, ওই নারী পুলিশ পরিদর্শকের স্বামীকে গভীর রাতে বাড়ি থেকে তুলে নিয়ে শারীরিক ও মানসিক নির্যাতন করেন।  

স্বামীর খোঁজে মহানগরীর বোয়ালিয়া থানায় গেলে ওই পুলিশ পরিদর্শক, নারী পরিদর্শককে আবারও উত্ত্যক্ত করেন এবং  আপত্তিকর কথাবার্তা বলেন। এভাবে সারাদিন উত্ত্যক্ত ও হয়রানির পর বিকেলে তার স্বামীর বিরুদ্ধে মামলা দায়েরের কথা বলেন এবং মিথ্যা মামলা দিয়ে আদালতে পাঠান বলে আরএমপির কমিশনারকে দেওয়া অভিযোগে উল্লেখ করা হয়েছে।

জানতে চাইলে রাজশাহী মহানগরীর বোয়ালিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নিবারণ চন্দ্র বর্মন জানান, তার বিরুদ্ধে অভিযোগকারী নারী পরিদর্শকের স্বামী একজন সক্রিয় শিবিরকর্মী। পুলিশ অভিযান চালিয়ে তাকে গ্রেফতার করেছে। তাকে ছাড়াতে নারী পরিদর্শক থানায় এসেছিলেন। কিন্তু মামলার কারণে তার তদবির রাখা সম্ভব হয়নি। এরপর বুধবার ওই নারী পরিদর্শক তার বিরুদ্ধে একটি অভিযোগ করেছেন বলে তিনি শুনেছেন।

এদিকে রাজশাহীর দামকুড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাহবুবুর রহমান বলেন, ওই নারী পরিদর্শকের সঙ্গে তার ২০১৮ সালে ডিভোর্স হয়ে গেছে। এরপর থেকে তার সঙ্গে কোনো যোগাযোগ নেই বলে দাবি করেন মাহবুবুর। এখন কেন তার নামে হঠাৎ অভিযোগ করলেন, সেটি ওই নারী পরিদর্শক ভালো বলতে পারবেন।