ভোলায় তৃতীয়বার মেয়র হলেন জাকির-রফিক

ভোলায় তৃতীয়বার মেয়র হলেন জাকির-রফিক

ভোলা প্রতিনিধি:কোনো সহিংসতা ছাড়াই শান্তিপূর্ণভাবে ভোলা জেলার দৌলতখান ও বোরহানউদ্দিন পৌরসভার ভোটগ্রহণ সম্পন্ন হয়েছে। এতে দৌলতখান পৌরসভার আওয়ামী লীগ মনোনীত মেয়র প্রার্থী জাকির হোসেন তালুকদার নৌকা প্রতীক নিয়ে পাঁচ হাজার ৮০০ ভোট পেয়ে তৃতীয়বারের মতো বেসরকারিভাবে মেয়র নির্বাচিত হয়েছেন।

জাকিরের নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী বিএনপি মনোনীত মেয়র প্রার্থী আনোয়ার হোসেন কাকন ধানের শীষ প্রতীকে পেয়েছেন ৮৩০ ভোট।

বোরহানউদ্দিন পৌরসভার আওয়ামী লীগ মনোনীত মেয়র প্রার্থী রফিকুল ইসলাম নৌকা প্রতীকে সাত হাজার ১৯৪ ভোট পেয়ে তৃতীয়বারের মতো বেসরকারিভাবে মেয়র নির্বাচিত হয়েছেন। রফিকের নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী বিএনপি মনোনীত মেয়র প্রার্থী মনিরুজ্জামান কবির ধানের শীষ প্রতীকে ৬৬২ ভোট ও স্বতন্ত্র মেয়রপ্রার্থী আব্দুস ছালাম নারকেল গাছ প্রতীকে ২৪৭ ভোট পেয়েছেন।

জেলা নির্বাচন অফিসার ও রিটার্নিং কর্মকর্তা আলা উদ্দিন আল মামুন এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

দিনভর ভোলার দুইটি পৌরসভার বিভিন্ন কেন্দ্রে ঘুরে দেখা যায়, অন্যান্য নির্বাচনের তুলনায় এ নির্বাচনে ভোটারদের উপস্থিতি ছিল চোখে পড়ার মতো। সকাল থেকেই কেন্দ্রে কেন্দ্রে দেখা গেছে ভোটারদের দীর্ঘ লাইন। পছন্দের প্রার্থীকে ভোট দিতে ঘণ্টার পর ঘণ্টা লাইনে দাঁড়িয়ে ছিলেন। তবে বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে ভোটারদের উপস্থিতি কমে আসে।

দিনভর নির্বাচনে মানুষের মাঝে উৎসবের আমেজ বিরাজ করছে। এ নির্বাচনে কোনো সহিংসতার ঘটনা ঘটেনি।

ভোলার পুলিশ সুপার সরকার মোহাম্মদ কায়সার জানান, কোথাও কোনো সহিংসতার ঘটনা ঘটেনি। তবে সকাল থেকে বিকাল পর্যন্ত বিভিন্ন কেন্দ্রে অনিয়মের অভিযোগে পাঁচজনকে আটক করা হয়েছে।

জেলা নির্বাচন অফিসার ও রিটার্নিং কর্মকর্তা আলা উদ্দিন আল মামুন জানান, সহিংসতা ছাড়াই সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ পরিবেশে ভোটগ্রহণ সম্পন্ন হয়েছে। বোরহানউদ্দিন পৌরসভায় মোট ভোটারের প্রায় ৭০ শতাংশ ও দৌলতখান পৌরসভায় প্রায় ৬০ শতাংশ ভোট পড়েছে।