ব্যানারে ‘করোন ভাইরাস’ লিখে সমালোচনার মুখে হাইওয়ে পুলিশ

ব্যানারে ‘করোন ভাইরাস’ লিখে সমালোচনার মুখে হাইওয়ে পুলিশ

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি:করোনাভাইরাস (কোভিড-১৯) প্রতিরোধে বিশেষ উদ্বুদ্ধকরণ কর্মসূচি পালন করে উল্টো সমালোচনার মুখে পড়েছে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার খাঁটিহাতা হাইওয়ে থানা পুলিশ।

বৃহস্পতিবার (২৫ মার্চ) বিকেল ৪টার দিকে এই কর্মসূচি পালন করা হয়। এই কর্মসূচি পালনের ব্যানারে ‘করোন ভাইরাস’ লিখে ও মহাসড়কে যান বন্ধ করে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে সমালোচনার ঝড় চলছে। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সরাইল উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ রফিক উদ্দিন ঠাকুর।

jagonews24

অনুষ্ঠানে হাইওয়ে থানা থেকে সচেতনতামূলক শোভাযাত্রা বের হয়ে ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের খাঁটিহাতা বিশ্বরোড মোড় প্রদক্ষিণ করে। যে ব্যানার নিয়ে শোভাযাত্রা করা হয় তাতে লেখা ছিল ‘করোন ভাইরাস’ প্রতিরোধে ভ্যাকসিন গ্রহণ করুন।

ওই শোভাযাত্রায় শতাধিক মানুষ অংশগ্রহণ করে। মহাসড়কের ওপর হাইওয়ে পুলিশের শোভাযাত্রার ফলে খাঁটিহাতা বিশ্বরোড মোড় এলাকায় যানযটের সৃষ্টি হয়।

এদিকে ব্যানারে করোনাভাইরাসের স্থলে ‘করোন ভাইরাস’ লেখায় ফেসবুকে চলছে সমালোচনা।

আইফাত মুন্সি নামে এক তরুণ এ বিষয়ে ফেসবুকে লেখেন, “সারাদেশে করোনা প্রতিরোধে মাঠে পুলিশ সাধুবাদ জানায়। কিন্তু বিপরীতধর্মী উদ্যোগ নিয়েছে খাঁটিহাতা হাইওয়ে পুলিশ। তারা নেমেছে নতুন এক ভাইরাস ‘করোন ভাইরাস’ প্রতিরোধে।”

jagonews24

জুয়েল রহমান নামের আরেক তরুণ লিখেছেন, “খাঁটিহাতা হাইওয়ে থানা পুলিশ ‘করোন ভাইরাস’ প্রতিরোধে সচেতনতা করছেন। করোনাভাইরাসের নাম এখন ‘করোন ভাইরাস’।”

এ বিষয়ে খাঁটিহাতা হাইওয়ে থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) গাজী শাখাওয়াত হোসেনের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, ‘আজকে অনুষ্ঠানের ব্যানার আমরা তৈরি করিনি। আমাদের হাইওয়ে হেডকোয়ার্টার থেকে যেভাবে পাঠিয়েছে, তা আমরা সেভাবেই ব্যবহার করেছি’ এই বলে তিনি ব্যস্ততা দেখিয়ে ফোনের লাইন কেটে দেন।