বিজয় উল্লাস করতে গিয়ে পানিতে ডুবে কিশোরের মৃত্যু

বিজয় উল্লাস করতে গিয়ে পানিতে ডুবে কিশোরের মৃত্যু

গাজীপুর প্রতিনিধি:প্রিয় দল আর্জেন্টিনা কোপা আমেরিকার ফাইনাল খেলায় জয়লাভ করেছে। এই খুশিতে বন্ধুদের নিয়ে আনন্দ-উল্লাসে মেতে উঠে কিশোর সিয়াম। পরে বন্ধুদের নিয়ে ফুটবল খেলার পর পূবাইলের ইছালি ব্রিজের নিচে বিলের পানিতে গোসল করতে নামে সিয়ামসহ ৭-৮ জন কিশোর। একপর্যায়ে বিলের পানিতে খেলতে খেলতে সাঁতার না জানায় তলিয়ে যায় সিয়াম। এসময় সিয়ামের আরেক বন্ধু আনন্দ ডুবে যাওয়ার সময় অন্যান্য বন্ধুরা তাকে পানি থেকে টেনে তুলে। পরে অনেক খোঁজাখুঁজি করেও সিয়ামের কোন সন্ধান না পাওয়ায় খবর দেওয়া হয় টঙ্গী ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরি দলকে। খবর পেয়ে প্রায় এক ঘণ্টার চেষ্টায় মৃত অবস্থায় সিয়ামকে উদ্ধার করে ডুবুরি দল।

রবিবার দুপুর ২টার দিকে গাজীপুরের পূবাইলে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

১৫ বছর বয়সী সিয়াম টঙ্গীর নোয়াগাঁও রেলস্টেশন এলাকার আব্দুর রব ওরফে সাদেকের ছেলে। সে টঙ্গীর দারুল উলুম মাদ্রাসার হেফজ বিভাগের ছাত্র।

এর আগে ভোরে কোপা আমেরিকার ফাইনাল খেলায় প্রিয় দল আর্জেন্টিনা ও ব্রাজিলের মধ্যকার ম্যাচটি বেশ হই-হট্টগোলের মধ্য দিয়েই উপভোগ করে সিয়াম। পরে আনন্দ মিছিল শেষে বাড়ির সামনের স্কুল মাঠে বন্ধুদের নিয়ে ফুটবল খেলে।

বিকালে টঙ্গীর নোঁয়াগাও এলাকায় গিয়ে দেখা যায়, সিয়ামের মৃত্যুর খবরে এলাকায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে। তার আকস্মিক মৃত্যুর ঘটনায় সহপাঠী ও আত্মীয়-স্বজনরা কান্নায় ভেঙে পড়েন।

নিহত সিয়ামের বন্ধু মাহফুজ ও মেহেদী জানায়, সকালে নোয়াগাঁও এমএ মজিদ মিয়া স্কুল মাঠে সবাই মিলে ফুটবল খেলি। এরপর সিয়ামসহ ৭-৮ জন বন্ধু পূবাইলের ইছালি ব্রিজের নিচে গোসল করতে যাই। সবাই সাঁতার জানলেও সিয়াম ও আনন্দ সাঁতার জানত না। পানিতে খেলতে খেলতে হঠাৎ করে সিয়াম ও আনন্দ ডুবে যায়। এসময় বন্ধুরা সবাই আনন্দকে পানি থেকে টেনে তুলে আনতে পারলেও সিয়াম পানিতে তলিয়ে যায়। পরে অনেক খোঁজাখুঁজি করে সিয়ামের সন্ধান না পেয়ে স্থানীয়দের মাধ্যমে ফায়ার সার্ভিসকে খবর দেওয়া হয়।

টঙ্গী ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরি দলের লিডার মো. জলিল বলেন, বন্ধুদের সঙ্গে বিলের পানিতে গোসল করতে নেমে ডুবে যায় সিয়াম। দুপুর দেড়টায় খবর পেয়ে টঙ্গী ফায়ার সাভির্সের ডুবুরি দল প্রায় এক ঘণ্টার চেষ্টায় মৃতদেহ উদ্ধার করে। পরে লাশ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়।