বহুতল ভবনের ছাদ থেকে পড়ে গৃহকর্মীর মৃত্যু

বহুতল ভবনের ছাদ থেকে পড়ে গৃহকর্মীর মৃত্যু

ঢামেক প্রতিবেদক:রাজধানী উত্তরার একটি ৬ তলা আবাসিক ভবনের ছাদ থেকে পড়ে লাকী (১৮) নামে এক গৃহকর্মীর মৃত্যু হয়েছে।

বুধবার (১৪ এপ্রিল) সকাল ৭টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। গুরুতর আহত অবস্থায় উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের জরুরি বিভাগে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক সকাল ১০টার দিকে তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

ওই বাড়ির গৃহকর্তা গোরা চাঁদ কুণ্ডু বলেন, ‘লাকি আমার বাসায় গৃহকর্মী হিসেবে কাজ করে। আমি প্রতিদিনের মতো আজও সকালে হাঁটতে বের হই। আমার বাসায় আরও একজন কাজের মেয়ে আছে। সে পহেলা বৈশাখ উপলক্ষে রান্নাবান্নার জন্য রান্নাঘরে ছিল। আমি হাঁটাহাটি শেষ করে বাসায় ফিরে এসে দেখি লাকী বাসায় নেই। পরে না পেয়ে নিচে খোঁজ নিলাম, কিন্তু সেখানেও পাইনি। পরে দেখি অন্য গৃহকর্মী ছাদ থেকে নেমে আসছে, সে আতঙএ কথা বলতে পারছে না। আমি জানতে চাইলে সে জানায়, লাকি উপর থেকে নিচে পড়ে গেছে। পরে আমরা দ্রুত তাকে গুরুতর আহত অবস্থায় উদ্ধার করে প্রথমে উত্তরা আধুনিক মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাই। অবস্থার অবনতি হলে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢামেক হাসপাতালে নিয়ে যাই। সেখানকার চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

তিনি আরও বলেন, ‘এক ব্যক্তির মাধ্যমে ৫ হাজার টাকা বেতনে গত মাস থেকে আমার বাসায় কাজ শুরু করেছিল মেয়েটি। কীভাবে সে ছাদ থেকে পড়ে গেছে, এ বিষয়ে আমি কিছু বলতে পারব না।’

নিহতের গ্রামের বাড়ি সুনামগঞ্জের তাহিরপুর উপজেলায়। উত্তরা ১০ নম্বর সেক্টরের ১০ নম্বর রোডের ১৫/এ বাসার ৪ তলায় ফ্ল্যাটে কাজ করত সে। গৃহকর্তা একজন ব্যাংক কর্মকর্তা।

ঢামেক হাসপাতালের পুলিশ ক্যাম্পের ইনচার্জ (পরিদর্শক) মো. বাচ্চু মিয়া মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, উত্তরা থেকে এমন একজনকে নিয়ে আসা হয়েছে। গৃহকর্তার ভাষ্য, তার বাসার ছাদ থেকে মেয়েটি পড়ে গেছে। ঢামেকে আনার পর সে মারা যায়। মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে রাখা হয়েছে। বিষয়টি সংশ্লিষ্ট থানাকে জানানো হয়েছে।