নির্বাচন কমিশনের ওপর মানুষের আস্থা শূন্যের কোঠায়

নির্বাচন কমিশনের ওপর মানুষের আস্থা শূন্যের কোঠায়
ফাইল ছবি

নিজস্ব প্রতিবেদক:জাতীয় পার্টির (জাপা) চেয়ারম্যান ও বিরোধীদলীয় উপনেতা গোলাম মোহাম্মদ (জিএম) কাদের বলেছেন, নির্বাচন কমিশনের ওপর মানুষের আস্থা এখন শূন্যের কোঠায় পৌঁছেছে। যারাই রাষ্ট্রক্ষমতায় ছিল, তারাই নির্বাচন কমিশনকে দলীয় স্বার্থে ব্যবহার করেছে বলে মন্তব্য করেন তিনি।

রোববার (৩ অক্টোবর) দুপুরে জাপা চেয়ারম্যানের বনানী কার্যালয়ে এক সভায় তিনি এ মন্তব্য করেন। এদিন জিএম কাদেরের হাতে ফুল দিয়ে পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির সাবেক সিনিয়র জিএম সৈয়দ ওয়াহিদুল ইসলাম জাতীয় পার্টিতে যোগ দেন।

জাপা চেয়ারম্যান বলেন, দেশে বিরাজনীতিকরণ চলছে, তাই দেশের রাজনীতিতে দলগুলো টিকতে পারছে না। এভাবে চলতে থাকলে দেশের মানুষ রাজনীতিতে আসবে না। মানুষ আর ভোটকেন্দ্রে ভোট দিতে যাবে না। সরকারের ফরমায়েশ মোতাবেক নামমাত্র দল থাকবে, নেতা থাকবে, সেসব দলের বা নেতাদের স্বতঃস্ফূর্ত সংগঠন থাকবে না বা দেশের মানুষের সমর্থন থাকবে না।

তিনি আরও বলেন, সাংবিধানিকভাবেই দেশে একনায়কতন্ত্র প্রতিষ্ঠিত করা হয়েছে। তাই কাউকেই দোষারোপ করা যায় না। সংবিধান অনুযায়ী দেশের নির্বাহী বিভাগ, আইনসভা ও বিচার বিভাগের প্রায় নব্বই ভাগই রাষ্ট্রপতির মাধ্যমে এক ব্যক্তির হাতে। বর্তমান সরকারব্যবস্থাকে কোনোভাবেই গণতান্ত্রিক বলা যায় না।

জাতীয় পার্টি খুলনা বিভাগীয় অতিরিক্ত মহাসচিব ও প্রেসিডিয়াম সদস্য সাহিদুর রহমান টেপার সভাপতিত্বে সভায় অন্যান্যের মধ্যে জাপার কো-চেয়ারম্যান এবিএম রুহুল আমিন হাওলাদার, প্রেসিডিয়াম সদস্য ও বিরোধীদলীয় চিফ হুইপ মো. মসিউর রহমান রাঙ্গা, প্রেসিডিয়াম সদস্য অ্যাডভোকেট মো. রেজাউল ইসলাম ভূঁইয়া প্রমুখ বক্তব্য দেন।