খুলনার দুই হাসপাতালে করোনায় ১১ জনের মৃত্যু

খুলনার দুই হাসপাতালে করোনায় ১১ জনের মৃত্যু
ফাইল ছবি

খুলনা প্রতিনিধি:গত ২৪ ঘণ্টায় খুলনার দুই হাসপাতালে করোনায় আক্রান্ত হয়ে আরও ১১ জনের মৃত্যু হয়েছে। সোমবার (২৮ জুন) সকালে হাসপাতালের দুই মুখপাত্র এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

এর মধ্যে খুলনা করোনা ডেডিকেটেড হাসপাতালে ছয়জন ও গাজী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঁচ জনের মৃত্যু হয়।

খুলনা করোনা ডেডিকেটেড হাসপাতালের ফোকালপারসন ডা. সুহাস রঞ্জন হালদার জানান, হাসপাতালের রেড জোনে চিকিৎসাধীন ছয় জনের মৃত্যু হয়েছে। সোমবার সকাল পর্যন্ত হাসপাতালে ১৬৯ জন চিকিৎসাধীন রয়েছেন। এর মধ্যে রেড জোনে ৯৯ জন, ইয়োলো জোনে ২৫ জন, আইসিইউতে ১৯ জন ও এইচডিইউতে ২০ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে ভর্তি হয়েছেন ৪১ জন। আর সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ৩৪ জন।

মৃতরা হলেন- খুলনার খানজাহান আলী থানা এলাকার আকলিমা (৩৫), সাতক্ষীরার তালার মো. সিফাতুল্লাহ্ (৮৫), খুলনার মৌলভীপাড়ার ফেরদৌসী ইসলাম (৫৮) ও নাইলী (৬৭), খুলনার ডুমুরিয়ার আম্বিয়া (৩৫) এবং বাগেরহাটের মংলার প্রদীপ কুমার (৬৩)।

গাজী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের সত্ত্বাধিকারী ডা. গাজী মিজানুর রহমান বলেন, হাসপাতালের করোনা ইউনিটে আরও পাঁচজনের মৃত্যু হয়েছে। সোমবার সকাল পর্যন্ত হাসপাতালের করোনা ইউনিটে ৯৮ জন রোগী চিকিৎসাধীন ছিলেন। গত ২৪ ঘণ্টায় ভর্তি হয়েছেন ২৬ জন আর সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ১৩ জন। আইসিইউতে রয়েছেন চারজন আর এইচডিইউতে আছেন ৯ জন।

মৃতরা হলেন- বাগেরহাট সদরের লাউপোল এলাকার নারায়ণ (৭১), খুলনার বটিয়াঘাটার জেবুন্নেসা (৬৭), নড়াইল লোহাগড়ার কতাকল এলাকার আব্দুর রহমান (৬০), গোপালগঞ্জের আড়পাড়ার সুফিয়া বেগম (৪৫), খুলনার হরিণটানা এলাকার এমএ হাশেম (৬৮)।

খুলনা জেনারেল হাসপাতালের করোনা ইউনিটের মুখপাত্র ডা. কাজী আবু রাশেদ জানিয়েছেন, গত ২৪ ঘণ্টায় হাসপাতালে কোনো রোগীর মৃত্যু হয়নি। চিকিৎসাধীন রয়েছেন ৬৭ জন। তার মধ্যে ৩৩ জন পুরুষ ও ৩৪ জন মহিলা। গত ২৪ ঘণ্টায় ভর্তি হয়েছেন ৯ জন।

খুলনা মেডিকেল কলেজের উপাধ্যক্ষ ডা. মেহেদী নেওয়াজ জানান, মেডিকেল কলেজের পিসিআর ল্যাবে ১৮৪ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। যা পরীক্ষা বিবেচনায় শনাক্তের হার প্রায় ৪০ শতাংশ।